প্রথমপাতা জাতীয় শিশুদের সঙ্গে রাজউক চেয়ারম্যানের মতবিনিময়

শিশুদের সঙ্গে রাজউক চেয়ারম্যানের মতবিনিময়

4
0

ডেস্ক নিউজ:

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) চেয়ারম্যান ড. সুলতান আহমেদ বলেছেন, শিশুদের কাছ থেকে যে প্রস্তাবগুলো আমরা পেয়েছি তার সবগুলো প্রস্তাবই ড্যাপে অন্তর্ভুক্ত করেছি। শিশুদের দায়িত্ব হলো তাদের প্রস্তাবগুলো বাস্তবায়ন হচ্ছে কি না তা মনিটরিং করা।

শনিবার রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) সংশোধিত বিশদ অঞ্চল পরিকল্পনা বা ডিটেইলড এরিয়া প্ল্যানে (ড্যাপ) শিশুদের প্রস্তাব অন্তর্ভুক্তিকরণের জন্য শিশুদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব বলেন।

শিশুবান্ধব আদর্শ নগরী গড়ে তুলতে ও শিশুদের চাহিদা ও স্বপ্নের প্রতিফলন নিশ্চিত করতে রাজউকের সভা কক্ষে রাজউক ও সেভ দ্য চিলড্রেনের আয়োজনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, শিশুরা তাদের প্রস্তাবনায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে খেলার মাঠের অভাবককে। তাই আমি রাজউকের সব প্রকল্পের খণ্ড জমিগুলো কাউকে বরাদ্দ না দিয়ে সেগুলো বিনোদন বা অবকাশ যাপনের জন্য পার্ক কিংবা সবুজ চত্বর করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছি। তোমরা (শিশুরা) নিজেরা সচেতন হলে তোমাদের বাড়ি সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন করতে পার। রাজউক থেকে নকশা অনুমোদন করে সেই নকশা অনুযায়ী বাড়ি তৈরি করতে বড়দের বাধ্য করতে তিনি শিশুদের অনুরোধ করেন।

Rajuk1

তিনি আরও বলেন, ড্যাপ বাস্তবায়ন শুধু রাজউকের একার কাজ নয়, এর সাথে সরকারি-বেসরকারি অনেকগুলো সংস্থা জড়িত। পরিকল্পনা মাফিক কাজ করে রাজধানী ঢাকা শহরের উন্নয়নে তাই সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। ড্যাপ প্রণয়নের ক্ষেত্রে আমরা পরিকল্পনার সাথে জড়িত দেশের সেরা বিশেষজ্ঞদের নিয়োগ করেছি, দেশের শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাকে এর সাথে সম্পৃক্ত করেছি। সুতরাং ভবিষ্যতে তাদের প্রণয়নকৃত ড্যাপের মাধ্যমে আমরা একটি পরিকল্পিত ঢাকা শহর পাব বলে আশা রাখি।

সভায় শিশুদের প্রস্তাবগুলোর মধ্যে অন্যতম চারটি প্রস্তাব ছিল : নিকটতম দূরত্বে স্কুল স্থাপন, পর্যাপ্ত খেলার মাঠ ও পার্ক তৈরি করা, নগরে সবুজ পরিবেশ ফিরিয়ে আনা, নিরাপদ আবাসিক এলাকা নিশ্চিত করা।

ড্যাপের প্রকল্প পরিচালক মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, প্রণয়নাধীন ড্যাপকে উপযোগী ও বাস্তবসম্মত করতে আমরা সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের মতামত গ্রহণ করেছি। শিশুরা কেমন ঢাকার স্বপ্ন দেখে তা জানতে আমরা এর আগে এ বছরের মে মাসে তাদের নিয়ে দিনব্যাপী কর্মশালার আয়োজন করেছি। সেখানে তারা তাদের মূল্যবান মতামত দিয়েছে। তাদের সেই মতামতসমূহকে চূড়ান্ত করার জন্যই আজকের এই সভার আয়োজন করা হয়েছে।

Rajuk1

আয়োজকরা জানান, বাংলাদেশে নগরবাসী মানুষের সংখ্যা প্রায় ৪ কোটি ২৭ লাখ, যার প্রায় অর্ধেক শিশু এবং কিশোর। সরকার ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে এবং সে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে। এরই অংশ হিসেবে একটি পরিকল্পিত, বাসযোগ্য এবং উন্নত ঢাকা গড়ে তোলার লক্ষ্যে সংশোধিত ড্যাপ বাস্তবায়ন করবে রাজউক।

শিশু-কিশোরদের জন্য একটি বাসযোগ্য, নিরাপদ এবং শিশুবান্ধব নগরী গড়ে তুলতে শিশুদের ভাবনা এবং মতামত বিবেচনায় নেওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই ঢাকার বিভিন্ন স্কুল থেকে আগত ২০০ শিশুর সাথে রাজউক কর্তৃপক্ষ ও উপস্থিত অন্যান্য অংশীজনদের সাথে সক্রিয় আলোচনায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে ড্যাপ নিয়ে তাদের চিন্তাভাবনা ও প্রস্তাবনাগুলো চূড়ান্ত করা হয়।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- রাজউকের সদস্য (পরিকল্পনা) আজহারুল ইসলাম খান, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্সের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট নগর পরিকল্পনাবিদ ও স্থপতি সালমা এ শফি, সেভ দ্য চিলড্রেন এর ডেপুটি ডিরেক্টর সৈয়দ মতিউল আহসান সাবেক, কম্প্রিহেনসিভ ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট প্ল্যান (সিডিএমপি) এর প্রকল্প পরিচালক মো. আব্দুল কাইয়ুম প্রমুখ।

আপনার অভিমত/মন্তব্য জানাতে পারেন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্যটি লিখুন
অনুগ্রহ করে এখানে আপনার নাম লিখুন